June 5, 2020
  • এসএসসি-সমমানের ফল প্রকাশ
  • ধাপে ধাপে খোলা হবে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: প্রধানমন্ত্রী
  • জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৯৮ শিক্ষার্থী
  • সুস্থ হওয়ার ৬ মাস পর আবার আক্রান্ত হতে পারেন করোনায়!
  • ডেল্টা হসপিটালের কাট অফ প্রাইস ১১ টাকা
  • নাসিমা সুলতানা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক
  • ৫০ লাখ পরিবার বৃহস্পতিবার থেকে নগদ অর্থ পাবে
  • প্রধানমন্ত্রী সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন: ওবায়দুল কাদের
  • সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য ১৩ নির্দেশনা
  • দেশে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ১৯, আক্রান্ত ১১৬২

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে কাজ চলমান, ঈদে ভোগান্তির আশঙ্কা

dhch
বাংলার নিউজ ডট কমঃ নির্ধারিত সময়ে ঢাকা-টাঙ্গাইল-জয়দেবপুর-এলেঙ্গা মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের কাজ শেষ না হওয়ায় আসন্ন ঈদে ভোগান্তিতে পড়তে হতে পারে চালক ও যাত্রীদের।

মহাসড়ক উন্নতি কাজের কয়েক দফা সময় বাড়িয়ে মূল প্রকল্পের সাথে যুক্ত করা হয়েছে নতুন নতুন প্রকল্প। দিনরাত চলছে সেই প্রকল্প উন্নয়নের কাজ। নির্মাণ কাজ চলমান থাকায় ক্ষণে ক্ষণে দেখা দিচ্ছে যানজট।

উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের প্রায় ২৬টি জেলার পরিবহন চলাচল করে এই ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক দিয়ে। ২০১৬ সালে দুই লেনের মহাসড়কটি চারলেনে উন্নতিকণের প্রকল্প হাতে নেয় সরকার। যা ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যে শেষ হওয়ার কথা।

কিন্তু প্রকল্পে বেশ কয়েকটি আন্ডারপাস, ওভারপাস ও দুটি সার্ভিস লেন যুক্ত হওয়ায় কয়েক দফায় বেড়ে যায় প্রকল্পের সময়। যার নির্মাণ কাজ এখনো শেষ হয়নি। ফলে মহসড়কের বিভিন্ন স্থানে সৃষ্টি হয়েছে প্রতিবন্ধকতা।

মহাসড়কের এলেঙ্গা বাসস্ট্যান্ড, রাবনা বাইপাস, ঘারিন্দা বাইপাস, ভাতকুড়া বাইপাস এক লেনের কাজ চলমান রয়েছে। করটিয়া হাট বাইপাস, জামুর্কি বাসস্ট্যান্ড, ধল্লা বাসস্ট্যান্ড, মির্জাপুর বাসস্ট্যান্ড ও গোড়াই এলাকায় মহাসড়কের আন্ডারপাস ও অভারপাসের কাজ চলমান রয়েছে। এই এলাকাগুলোতে যানবাহনের ধীরগতি দেখা গেছে।

একদিকে চলমান নির্মাণ কাজের প্রতিবন্ধিকতা অপরদিকে কয়েকটি স্থানে অবৈধ স্থাপনা ও বৈদ্যুতিক খুটি অপসারণ না করায় ওই সকল স্থানে ঈদ যাত্রায় সৃষ্টি হতে পারে ভয়াবহ যানজট।

মহাসড়ক ব্যবহারকারীরা বলেন, মহাসড়ক চারলেনে উন্নতি হওয়ায় কিছুটা সুফল পাওয়া যাচ্ছে। এখনো মহাসড়কের কয়েকটি স্থানে অভারব্রিজ ও সড়কের কাজ শেষ না হওয়ায় ঈদ যাত্রায় স্বাভাবিকের (১০-১৫ হাজার) তুলনায় কয়েকগুন গাড়ি চাপ বেড়ে গিয়ে সৃষ্টি হয় যানজটের। এতে করে যানজটের তৈরি হতে পারে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের জয়দেবপুর-এলেঙ্গা চারলেন প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার অমিত কুমার চক্রবর্তী বলেন, প্রকল্প এলাকায় ১২টি আন্ডার পাস ও দুটি ওভারপাসসহ বিভিন্ন কাজ চলমান রয়েছে। আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বেশ কয়েকটি জনসাধারনের জন্য খুলে দেয়া হবে। বাকি এলাকায় দুই পাশ দিয়ে যান চলাচলের ব্যবস্থা করে দেয়া হবে।

টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম বলেন, মহাসড়ক থেকে দ্রুত অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করে যানজটমুখ ঈদ যাত্রার ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

বিভাগ - : আঞ্চলিক সংবাদ, জাতীয়

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন