April 6, 2020
  • পবিত্র শবে মেরাজ আজ
  • করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২৭৭৭
  • ‘তারা কেমন ব্যবসায়ী, করোনভাইরাসের ভয়ও নেই’
  • মহামারী নিয়ে রাসূল (সা.)-এর নির্দেশনা
  • করোনাভাইরাস ঠেকাতে খাদ্য সতর্কতা
  • জমে উঠেছে বইমেলা
  • সর্বত্র বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করব: মেয়র তাপস
  • বিএনপি গণমানুষের রাজনীতি করতে ব্যর্থ: তথ্যমন্ত্রী
  • ঢাবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মাতৃভাষা দিবস পালিত
  • ট্রাম্পের সাবেক উপদেষ্টা স্টোনের ৪০ মাসের জেল

ওয়ার্কআউটের পর কী খাওয়া দরকার ?‌

ffn
বাংলার নিউজ ডট কমঃ শুধু রোগা হতে নয়, সুস্থ থাকতেও শরীর চর্চা করাটা জরুরি। খাওয়া–শোয়ার মতো শরীরচর্চাও রুটিনের মধ্যে ঢুকিয়ে নিন। তবে শুধু শরীর চর্চা করলেও হবে না। তারপর পরিমিত আহার করা দরকার। তা বলে ওয়ার্কআউট করেই বার্গার খেলে কিন্তু সব বিফল। কী খাবেন, কখন খাবেন, তার ওপর নির্ভর করে ফল।

ওয়ার্কআউট করার আধ ঘণ্টার মধ্যে খেতে হবে। কারণ ওয়ার্কআউটের সময় প্রচুর নিউট্রিয়েন্টস খরচ হয়। খেলে সেই খামতি পূরণ হবে। এনার্জি আসবে। চিকিৎসকরা বলেন, ওয়ার্কআউটের পর অন্তত ৭ থেকে ১৫ গ্রাম প্রোটিন খাওয়া উচিত। এজন্য প্রোটিন শেক খান। ডায়েট চার্ট কেমন হবে, জেনে নিন—

❏‌ টুনা স্যান্ডউইচ, হামুস

টুনায় প্রচুর প্রোটিন রয়েছে। তবে ক্যালরি কম। মেয়োনিজের বদলে হামুস খান। ওজন বাড়বে না। পুষ্টিও হবে। সবজি পুড়ে স্যান্ডউইচও খেতে পারেন।

❏‌ ডিম

প্রোটিনের ঘাটতি মেটাবে ডিম।

❏‌ অ্যাভোকাডো

এতে থাকে ভিটামিন বি, যা কার্বোহাইড্রেট বিপাকে সাহায্য করে।

❏‌ চেরি

চেরিতে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। পেশির ক্লান্তি দূর করে।

❏‌ শুকনো ফল

কাজু, কিসমিস, আমন্ড, আখরোটের মতো শুকনো ফল খেতে পারেন। খিদে মিটবে। ওজন বাড়ার চাপ নেই।

বিভাগ - : লাইফস্টাইল

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন