February 18, 2019
  • চারলেন হচ্ছে এলেঙ্গা-রংপুর সড়ক
  • ব্রেক্সিট আর ইহুদিবিদ্বেষ, লেবার পার্টি ছাড়লেন সাত এমপি
  • নির্বাচন যেন প্রশ্নবিদ্ধ না হয়: ইসি
  • মঙ্গলবার আখেরি মোনাজাত
  • ডাকসুর মনোনয়নপত্র বিতরণ মঙ্গলবার শুরু
  • রাজধানীতে ডাস্টবিন থেকে গুলি-গ্রেনেড উদ্ধার
  • অভিজিৎ হত্যার ৪ বছর পর চার্জশিট দিল পুলিশ
  • জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে সচেষ্ট হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • মঙ্গলবার রাজধানীতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে
  • নিউ লাইন ক্লোথিংসের আইপিও আবেদন শুরু

কুষ্টিয়ায় পৃথক দুই ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

bonduk
বাংলার নিউজ ডট কমঃ কুষ্টিয়ার সদর ও দৌলতপুর উপজেলায় পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার কবুরহাট ও দৌলতপুর উপজেলার বাঁধের বাজার এলাকার মুসলিমনগর মাঠে এই দুটি ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন দৌলতপুরের জামালপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আজম (৩৩) ও একই গ্রামের রিফাজ উদ্দিনের ছেলে মদন (৪৫)। দুজনই জেলার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন বলে পুলিশ দাবি।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছির উদ্দিন দাবি করেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পুলিশ জানতে পারে, উপজেলার কবুরহাটের মাদ্রাসাপাড়া জি কে ক্যানেলের পাশে দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলি হচ্ছে। তখন পুলিশের একটি টহল দল ঘটনাস্থলে অভিযানে যায়।

‘পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।’

ওসি আরো দাবি করেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন, তিনটি গুলি ও ৮০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় উপপরিদর্শক (এসআই) মোস্তাফিজুর রহমানসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

অন্যদিকে, দৌলতপুর থানার ওসি শাহ দারা খান জানান, গতকাল দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার বাঁধের বাজার এলাকার মুসলিমনগর মাঠে দুদল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিনটি গুলি, ৯০০ ইয়াবা ও ৩০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়েছেন বলেজানিয়েছেন ওসি।

বিভাগ - : আইন ও অপরাধ, আঞ্চলিক সংবাদ

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন