September 20, 2019
  • ডেঙ্গুর চিকিৎসায় ক্ষতি সাড়ে ৩০০ কোটি টাকা
  • ৮০ হাজার ছাড়িয়েছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা
  • আছাদুজ্জামানের বিদায়, ডিএমপির দায়িত্বে শফিকুল
  • সংশোধিত পাবলিক ইস্যু রুলসের গেজেট প্রকাশ
  • রিং সাইনের আইপিও লটারির ড্র তারিখ নির্ধারণ
  • রাজধানীতে কিশোর গ্যাংয়ের শতাধিক সদস্য আটক
  • পর্যটনবান্ধব দেশের র‌্যাংকিংয়ে বড় সাফল্য বাংলাদেশের
  • উখিয়ার পাহাড়ে মাটি খুঁড়ে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার
  • শেষ মুহূর্তে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ভারতের চন্দ্রযান ২
  • নোয়াখালীর ঠিকানায় পাসপোর্ট, তুরস্ক যাওয়ার চেষ্টা ৩ রোহিঙ্গার

আমাজনের আগুন নেভাতে এবার সেনাবাহিনী তলব

amma
বাংলার নিউজ ডট কমঃ আমাজনের ভয়াবহ দাবানল নেভাতে সেনাবাহিনী তলব করেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জায়ার বোলসোনারো।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানা যায়, এ বিষয়ে জায়ার বোলসোনারো এক ডিক্রি জারি করেছেন। তিনি সেনাবাহিনীকে ওই অঞ্চলের প্রাকৃতিক সংরক্ষণাগার, আদিবাসীদের জমি ও সীমান্ত এলাকায় মোতায়েনের অনুমোদন দিয়েছেন।

ইউরোপীয় নেতাদের ‘চাপের পর’ এমন ঘোষণা এলো বলে জানায় সংবাদমাধ্যমটি। এর আগে আমাজনের জঙ্গলের আগুন নিয়ে অন্য দেশগুলোর প্রতিক্রিয়ার সমালোচনা করেন বোলসোনারো।

ফ্রান্স ও আয়ারল্যান্ড জানায়, আমাজনের আগুন নিয়ন্ত্রণে না আনলে তারা দক্ষিণ আমেরিকান দেশগুলো সঙ্গে বড় বাণিজ্য চুক্তিতে অনুমোদন দেবে না। ফিনল্যান্ডে অর্থমন্ত্রী ইউরোপীয় ইউনিয়নে ব্রাজিলের গরুর মাংস আমদানি নিষিদ্ধের ডাক দেন।

এ ছাড়া পরিবেশবাদী পক্ষগুলো ব্রাজিলের বিভিন্ন শহরে শুক্রবার বিক্ষোভ করে। বিশ্বের নানা দেশে ব্রাজিলের দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার টেলিভিশনে বোলসোনারো সেনাবাহিনীর সাহায্য চাওয়ার ঘোষণাটি দেন। সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা বলেন, “সামরিক বাহিনীর একজন সদস্য হিসেবে আমি আমাজনকে ভালোবাসতে শিখেছি। একে রক্ষায় আমি সাহায্য চাই।”

যদিও ডিক্রিটি এখনো পুরোপুরি স্পষ্ট নয়। তবে এতে বলা হয়েছে প্রাকৃতিক সংরক্ষণাগার, আদিবাসীদের জমি ও সীমান্ত অঞ্চলে সেনা মোতায়েন করা হবে।

আঞ্চলিক গভর্নরদের সঙ্গে সমন্বয় করে সৈন্যরা কাজ করবে। পরিবেশগত অপরাধের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। অবস্থা জরিপ ও আগুনের প্রকোপ কমাতে অনুরোধ করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ২৪ আগস্ট থেকে এক মাসের জন্য এই আদেশ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে আন্দোলনকারীরা দাবি করেন, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের পরিবেশ বিরোধী কথাবার্তা আগুন দিয়ে জঙ্গল সাফ করাকে উৎসাহিত করেছে।

তখন বোলসোনারো এর দায় চাপান বেসরকারি সংস্থাগুলোর ওপরে। বলেন বেসরকারি সংস্থাগুলো সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য নিজেরাই এই আগুনগুলো লাগিয়েছে।

পরে অবশ্য স্বীকার করেছেন দাবানল বন্ধ করার মতো সংগতি সরকারের হাতে নেই।

আমাজনকে বলা হয়ে থাকে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’। অক্সিজেন উৎপাদন ও বৈশ্বিক উষ্ণায়ন কমাতে এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

এখানে রয়েছে ৩০ লাখ প্রজাতির উদ্ভিদ ও প্রাণীর বাসস্থান। বসবাস করেন ১০ লাখ আদিবাসী।

ব্রাজিলিয়ান স্পেস এজেন্সির তথ্য অনুযায়ী, দেশটির আমাজনের উষ্ণমণ্ডলীয় বনাঞ্চলে ২০১৯ সালে রেকর্ডসংখ্যক দাবানলের ঘটনা ঘটেছে।

দ্য ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর স্পেস রিসার্চ (আইএনপিই) বলছে তাদের উপগ্রহ থেকে সংগৃহীত তথ্যে দেখা যাচ্ছে ২০১৮ সালের একই সময়ের তুলনায় চলতি বছর আগুন লাগার ঘটনা ৮৫ শতাংশ বেড়েছে।

বিভাগ - : আন্তর্জাতিক

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য দিন